জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল না পেছানোর দাবি জানিয়েছে যুক্তফ্রন্ট

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল না পেছানোর দাবি জানিয়েছে যুক্তফ্রন্ট। আজ দলটির মহাসচিব আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে ৯ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার সঙ্গে বৈঠক করে যুক্তফ্রন্ট।

এদিকে এর আগে সোমবার (৫ নভেম্বর) তফসিল ঘোষণার সময় আরো পেছানোর দাবি নিয়ে নির্বাচন কমিশনে যায় ঐক্যফ্রন্ট। সোমবার বিকেলে আগারগাঁওয়ের ইসি ভবনে তারা নির্বাচন কমিশনার একেএম নূরুল হুদা সহ চার কমিশনারের উপস্থিতিতে বৈঠকে এই দাবি জানান।

ফলত এই দুই রাজনৈতিক দল এখন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা নিয়ে বিপরীত অবস্থানে রয়েছে।

যুক্তফ্রন্টের সঙ্গে ইসির বৈঠকে দলটির পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনের কাছে পাঁচ দফা দাবি তুলে ধরা হয়। এগুলো হচ্ছে-

১. সমস্ত জাতি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। *নির্বাচনকমিশনের Constitutional and Conscience আপনাদের প্রয়োগ করতে হবে। তবে এটা করতে ব্যর্থ হলে জাতি আপনাদের ক্ষমা করবে না।

২. নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা অকারণে বিলম্ব হলে জাতির মধ্যে সংশয়, বিভ্রান্তি ও হতাশার সৃষ্টি হবে- যা কোনোক্রমেই কাম্য নয়।

৩. জাতির প্রত্যাশায় যাতে কোনোরকম অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির উদ্ভব না হয়- সেটা দেখা নির্বাচন কমিশনের সাংবিধানিক ও নৈতিক দায়িত্ব।

৪. জনগণের এই সময়ের অবাধ, সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবির প্রতি যুক্তফ্রন্টের নিরঙ্কুশ সমর্থন রয়েছে।

৫. সরকার বা অন্য কোনো জোটের চাপ বা ভয়-ভীতি প্রদর্শন করলে- নির্বাচন কমিশন মাথা নত করবে না এটা যুক্তফ্রন্ট ও সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা।

কারণ: ক) নির্বাচন কমিশন তফসিল ঘোষণার পর শত ভাগ মাননীয় রাষ্ট্রপতির অধীন।

খ) নির্বাচনের সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত কর্মচারীদের নির্বাচন কমিশনের অধীনস্থ করতে হবে।

গ) তফসিল ঘোষণার পর এমপিগণ সংশ্লিষ্ট এলাকায় কোনো প্রকল্প উদ্বোধন/ প্রতিশ্রুতি যাতে না দিতে পারে সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। মন্ত্রী ও এমপিদের সরকারি সুযোগ-সুবিধা প্রত্যাহার করতে হবে।

ঘ) সরকারি দলের প্রার্থীদের বিল বোর্ড, ব্যানার, পোস্টার অবিলম্বে অপসারণ করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Shares