ধন-সম্পদ ও জনবল সম্পর্কে সতর্ক হবেন যে কারণে

ধন-সম্পদ, সন্তান-সন্ততি এ সবই দুনিয়ার সৌন্দর্য বা সান্ত্বনা ছাড়া আর কিছুই নয়। অথচ দুনিয়াদার কিছু মানুষ রয়েছে যারা ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্তুতি নিয়ে গর্ব করে।

মহান আল্লাহ তাআলা বলেন, ধন-সম্পদ, সন্তান-সন্ততি হলো ক্ষনস্থায়ী ও ধ্বংসশীল। যদি এ ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততির ব্যবহার ও প্রতিপালন সৎ ও ন্যায় পথে না হয় তবে তা পরকালের কোনো উপকারে আসবে না।

আল্লাহ তাআলা মানুষকে নিজেদের ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততিদের নিয়ে গর্ব অহংকার করতে কুরআনের অনেক জায়গায় নিষেধ করেছেন। কেননা ধন-সম্পদ ও জনবলের আধিক্যের কারণে মানুষ কঠিন ও বড় অন্যায় কাজে লিপ্ত হয়। সে কারণে মানুষকে সতর্ক করে আল্লাহ তাআলা বলেন-

>> ‘ধন-ঐশ্বর্য ও সন্তান-সন্ততি পার্থিব জীবনের শোভা। (সুরা কাহাফ : আয়াত ৪৬)

অন্য আয়াতে আল্লাহ তাআলা বলেন-

>> ‘তাদের ধন –সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি তোমাকে যেন বিমুগ্ধ না করে। আল্লাহ তো সেগুলো দ্বারাই তাদেরকে পার্থিব জীবনে শাস্তি দিতে চান। (সুরা তাওবা : আয়াত ৫৫)

এ আয়াতে আল্লাহ তাআলা দুনিয়ার ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততিকে মানুষের জন্য পরীক্ষাস্বরূপ দান করেছেন। আল্লাহ নিজেই অন্যত্র ঘোষণা করেন-

>> আমি তাদের বিভিন্ন শ্রেণীকে পরীক্ষা করার জন্য পার্থিব জীবনের সৌন্দর্যস্বরূপ ভোগ বিলাস তথা আরাম আয়েশের যে উপকরণ দিয়েছি, তার প্রতি তুমি কখনো তোমার চক্ষুদ্বয় প্রসারিত করো না।’ (সুরা ত্বহা : আয়াত ১১)

আল্লাহ তাআলা বলেন কেউ যেন এ কথা মনে না করে যে ধন ও জন তাদের কল্যাণের বাহন। বান্দাকে সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন-

>> ‘তারা কি মনে করে যে, আমি তাদেরকে সাহায্যস্বরূপ যে ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি দান করি; তা দ্বারা তাদের জন্য সব ধরনের কল্যাণ তরান্বিত করছি? বরং তারা বুঝে না।’ (সুরা মুমিনুন : আয়াত ৫৫-৫৬)

মনে রাখতে হবে-

জনবল ও সম্পদ মানুষকে বিপথগামী করে তোলে। আর মুমিনের অন্যতম দায়িত্ব ও কর্তব্য হলো ধন-সম্পদ ও জনবলের অহংকার ও গর্ব থেকে মুক্ত থাকা।

আল্লাহ তাআলা দুনিয়াতে বান্দাকে যা-ই দান করেছেন; তা যত শক্তিশালী ও দামিই হোক না কেন, তা বান্দাকে আল্লাহর কাছ থেকে রক্ষা করতে পারবে না। যদি না বান্দা সঠিক পথে না চলে বা তার দেয়া সম্পদ সঠিক পথে ব্যবহার না করা হয়।

সে কারণেই আল্লাহ তাআলা বান্দাকে সতর্ক করে বলেন-

>> ‘আল্লাহর শাস্তির মোকাবেলায় তাদের ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি কোনো কাজে আসবে না। তারাই জাহান্নামের স্থায়ী অধিবাসী। (সুরা মাজাদালাহ : আয়াত ১৭)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে দুনিয়ার মোহ ও ক্ষমতার অপব্যবহার থেকে মুক্ত থাকতে ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততির অহংকার ও গর্ব থেকে মুক্ত থাকার তাওফিক দান করুন। নিজেদের ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততিকে সঠিক পথে পরিচালিত করার তাওফিক দান করুন। আল্লাহর বিধি-বিধান যথাযথ পালন করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Shares