হরিণাকুন্ডুতে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার ভায়না ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছমির উদ্দিনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। প্রকল্পের অর্থ, পরিষদের টাকা আত্মসাৎসহ নানা অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে এলাকাবাসী। বুধবার বিকেলে উপজেলার জোড়াদহ বাজারে এ কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। এতে ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে এলাকার বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অংশ হয়। ঘন্টাব্যাপি চলা এ কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম, ৩নং ওয়ার্ড আ.লীগ সভাপতি সোহরাব মোল্লা, ৫নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি জাহিদ মোল্লা, যুবলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোলাম হোসেন ও আলতাব হোসেন প্রমুখ। এসময় বক্তারা অভিযোগ করেন, চেয়ারম্যান ছমির উদ্দীনের বিরুদ্ধে ভূমি হস্তান্তর কর এর ১% বরাদ্দ হতে ইউনিয়ন পরিষদে আসবাব পত্র ক্রয় সহ জানালা দরজা মেরামত এবং ইউ,পি ভবন রং করা ও ছাদ প্লাস্টিক করার লক্ষ্যে ২০১৬-১৭ ও ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে প্রকল্প গ্রহণ করলেও প্রাক্কলন অনুযায়ী ৪০টি চেয়ার ক্রয়ের পরিবর্তে স্বল্প ব্যায়ের মেরামত করা হয়েছে। এছাড়াও জ্বানালা দরজা মেরামত ভবন রং করা ও ছাদ প্লাস্টার করার ক্ষেত্রেও অনিয়ম করা হয়েছে। এছাড়াও হাট বাজার উন্নয়ন প্রকল্পের বরাদ্দের অর্থ ইউনিয়ন পরিষদের ব্যাংক হিসাবে না রেখে চেয়ারম্যান নিজ ইচ্ছা অনুযায়ী সে অর্থ ব্যয় করেছেন । বক্তারা আরও অভিযোগ করেন, কাবিটা, কাবিখা, টি.আর কর্মসূচির প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে চেয়ারম্যান তার সহযোগী উদ্যোক্তার সহযোগিতায় প্রকল্প বাস্তবায়ন এর ক্ষেত্রে কোন ইউ,পি সদস্যের মতামত না নিয়ে নিজ ইচ্ছায় কাজ করেছেন। বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধী ও মাতৃত্বকালীন ভাতা অর্থের বিনিময়ে প্রদান করা হয়। এছাড়াও ভিজিডি, ভিজিএফ, ৪০ দিনের কর্মসূচি বাস্তবায়নে অনিয়ম এল.জি.এস.পি-র ৩টি প্রকল্প বাস্তায়নের ক্ষেত্রে ওয়ার্ড ইউপি সভা না করে সকল সদস্যকে উপেক্ষা করে উদ্যোক্তাদের সাথে যোগ সাজসে চেয়ারম্যান কাজ করেছেন। ইউপি সদস্য আলতাব হোসেন ও মোলায়েম হোসেন জানান, এ সব অভিযোগের বিষয়ে গত ১০ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার মন্ত্রী, দূর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান, ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসকসহ কয়েকটি দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। তারা এ দুর্নীতির তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানান। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত চেয়ারম্যান ছমির উদ্দিন বলেন, আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা সম্পুন্ন মিথ্যা। আমার কাজে কোন অস্বচ্ছতা নেই। অভিযোগের তদন্ত করলে মুল তথ্য বেরিয়ে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Shares