সাদা পোশাকেও ইংলিশ যুবাদের পাত্তা দিলো না বাংলাদেশ

মাহমুদুল হাসানের সেঞ্চুরির উপর ভর করে দ্বিতীয় টেস্টেও ইংলিশ যুবাদের বিপক্ষে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশের যুবারা, একই সঙ্গে ধবল ধোলাই নিশ্চিত হয় ইংল্যান্ডের। এই জয়ের মাধ্যমে শেষ হয় ইংলিশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বাংলাদেশ সফর। যেখানে ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট; তিন ফরম্যাটেই হোয়াইট ওয়াশ হয়ে দেশে ফিরতে হলো সফরকারীদের।

জয়ের জন্য আগের দিনই বাংলাদেশকে ৩৩৩ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দল। বাংলাদেশ দিন শেষ করে ১ উইকেটে ৩৪ রান নিয়ে। জয়ের জন্য তাই আজ শেষ দিনে প্রয়োজন ছিলো ২৯৯ রান, হাতে ৯ উইকেট। লাঞ্চের আগে দুই উইকেট হারালেও মাহামুদুল হাসান ও তৌহিদ হৃদয়ের ব্যাটে খুব একটা অসুবিধায় পড়তে হয়নি স্বাগতিকদের। দুজনে মিলে চতুর্থ উইকেট জুটিতে যোগ করেন ১৪২ রান।

হৃদয় ৭৬ রান করে আউট হলেও মাহমুদুল ৬ষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে যখন সাজঘরের পথ ধরেন, তখন জয় থেকে মোটে ৭ রান দূরে জুনিয়র টাইগাররা। পরে বাকী আনুষ্ঠানিকতার কাজটুকু করেন রুহেল আহমেদ ও মিনহাজুর রহমান। জয়ের পথে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ভাঙে চতুর্থ ইনিংসে নিজেদের সর্বোচ্চ ২৭৬ রানের রেকর্ডও।

ফিঞ্চের বলে আউট হওয়ার আগে হৃদয় ১৪৫ বলে ছয় চার ও এক ছক্কার সাহায্যে করেন ৭৬ রান। ২২৪ বলে ১৩ চারে ১১৪ রান আসে মাহমুদুলের ব্যাট থেকে, যা ২০১৫ সালের পর কোন বাংলাদেশি যুবার ব্যক্তিগত শতক ছিলো এটি! এছাড়া ওপেনার তানজিদ ৫১ ও শাহাদাত ২০ রান করেন। ইংলিশদের পক্ষে ফিঞ্চ, অ্যাল্ড্রিজ ও হামিদুল্লাহ প্রত্যেকেই নেন সমান দুইটি করে উইকেট। বাকি একটি যোগ হয় হলম্যানের নামের পাশে।

এর আগে প্রথম ইনিংসে ইংলিশদের করা ৩৩৭ রানের জবাবে বাংলাদেশ অলআউট হয় ২২৮ রানে। ১০৯ রানের লিড নিয়ে ব্যাট করা ইংলিশ যুবারা নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ উইকেটে ২২৩ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে। বাংলাদেশের পক্ষে সেঞ্চুরি করা মাহমুদুল ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন এবং সিরিজ জুড়ে অনবদ্য পারফর্ম করার ফলে ম্যান অব দ্যা সিরিজ খেতাব উঠে বাংলাদেশি বোলার মিনহাজুর রহমানের হাতে।

আজকের ম্যাচ জয়ের ফলে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে দুইটাতেই জয়ের সাথে এর আগে ইংলিশ যুবাদের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ৩-০ ও একমাত্র টি-টোয়েন্টিও জিতে বাংলাদেশের যুবারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Shares