সকাল-সন্ধ্যা টানা লোডশেডিংয়ে বিপাকে ঠাকুরগাঁওবাসী

মোঃ ইলিয়াস আলী, ঠাকুরগাঁও: শুক্রবার (২৯ মার্চ) সকাল ৭টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত মিলেনি বিদ্যুতের দেখা ঠাকুরগাঁও জেলায়। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি নোটিশ এবং প্রচারণা ছাড়াই এ ধরণের টানা লোড শেডিংয়ে বিপাকে পড়েছে ঠাকুরগাঁওয়ের ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

তবে না জানিয়ে টানা লোডশেডিং এর ফলে ঠাকুরগাঁও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা।

ঠাকুরগাঁও পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের লাইনম্যান মোঝারুলকে মুঠোফোনে কল দিয়ে জানা যায় বিদ্যুতের লাইন ঠিক করার জন্য এ লোডশোডিং দেওয়া হয়েছে৷

তবে ঠাকুরগাঁও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি কর্তৃপক্ষের দাবি বিষয়টি ‘পত্রিকায়, ফেসবুক এবং অনলাইনে বিষয়টি প্রচার করা হয়েছে।’ এমন কোন প্রচার শোনেননি বলে জানিয়েছেন স্থানীয় অনেক ব্যবসায়ী।

শহরের লন্ড্রি ব্যবসায়ী তসির উদ্দীন জানান, সকাল থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত দোকান খোলা থাকে আমার, কোন সময় প্রচার করলো পল্লী বিদ্যুতের লোকজন। আমি কোনো প্রচার শুনিনি।

বুলবুল ওয়ার্কশপের সত্ত্বাধিকারী বজলুর রহমান জানান, বিদ্যুৎ না থাকায় আমার ১৫ জন শ্রমিক বসে দিন পার করছে। একদিকে যেমন কোনো কাজ হচ্ছে না, অন্যদিকে শ্রমিকদের বেতনও দিতে হবে। বিষয়টি আগে জানা থাকলে শ্রমিকদের ছুটি দিয়ে দিতাম। শ্রমিকরা একদিন বিশ্রাম নিতে পারত।

কৃষক আলহাজ্ব খলিলুর রহমান বলেন, আমার ১০০ বিঘা বোরো রোপাতে পানির সেচ দিতে হবে ৷ পানি দেওয়ার জন্য ১২ জনকে কামলা নিয়েছি কিন্তু সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিদ্যুৎ না থাকায় তাদের বসিয়ে বেতন দিতে হল৷আমার জমিগুলো পানি দিতে না পেরে শুকিয়ে গেছে৷

বিকালে ইন্টারনেট ব্যবসায়ী তৌসিফ হাসান বলেন, সকাল থেকেই চাকরির আবেদন করার জন্য অনেক জন দোকান থেকে ঘুরে গেছে। সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ আসবে, তাই দোকান বন্ধ করে বাসায় যাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Shares