বিজিবির বাংকারের তথ্য ভারতে পাচার, যুবক আটক

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে মো. মিঠুন (৩০) নামে এক যুবককে মাদকসহ গ্রেপ্তার করা হয়েছে যিনি বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) এলএমজি বাংকারের বিভিন্ন তথ্য ও ছবি ভারতে পাচার করেছিলেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে তাকে এসব অপরাধে দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

মিঠুন গোদাগাড়ী উপজেলার ভারতীয় সীমান্ত লাগোয়া চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নের চর কানাপাড়া গ্রামের দুলাল হোসেনের ছেলে। শনিবার সকালে চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নের সাহেবনগর এলাকা থেকে তাকে ২০ বোতল ফেনসিডিল, দুই কেজি গাঁজা এবং ১০ পুরিয়া হেরোইনসহ গ্রেপ্তার করা হয়।

বিজিবির ১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বিজিবির গোদাগাড়ীর সাহেবনগর সীমান্ত ফাঁড়ির একটি দল মিঠুনকে মাদকদ্রব্যসহ গ্রেপ্তার করে। এরপর সাহেবনগর সীমান্ত ফাঁড়িতে তাকে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তারা জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এ সময় মিঠুন জানান, দীর্ঘদিন ধরেই তিনি মাদক পাচারের সঙ্গে জড়িত।

এছাড়াও মিঠুন গত ৩ মার্চ সাহেবনগর সীমান্ত ফাঁড়ি এবং সেখানকার এলএমজি বাংকারসহ বিজিবির বিভিন্ন তথ্য ও ছবি মোবাইলে ধারণ করে গত ২৪ মার্চ ভারতে বসবাসকারী তার মামাতো ভাই মহিদুল ইসলামের কাছে ইমো অ্যাপসের মাধ্যমে পাঠিয়েছেন। বিষয়টি খুবই স্পর্শকাতর হওয়ায় রাতেই তাকে রাজশাহীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে দুই বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন।

বিজিবি অধিনায়ক জানান, মিঠুনের কাছ থেকে জব্দ করা মাদকদ্রব্য জনসম্মুখে ধ্বংস করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আর মিঠুন কেন সীমান্তের এপারের তথ্য ভারতে পাচার করেছিলেন সে বিষয়টি তারা অধিকতর গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করে দেখছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Shares