দ্বিতীয় মেঘনা, গোমতী সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দীর্ঘ প্রতীক্ষিত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দ্বিতীয় মেঘনা সেতু এবং দ্বিতীয় গোমতী সেতু উদ্বোধন করেছেন। ফলে রাজধানী ঢাকার সঙ্গে বাণিজ্যিক রাজধানীখ্যাত বন্দর নগরী চট্টগ্রামের সড়ক পথের চলাচলে আজ থেকে এক নবদিগন্তের সূচনা হলো।

আজ শনিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতু দু’টি উদ্বোধন করেন।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রী কোনাবাড়ি ও চন্দ্রা ফ্লাইওভার, কালিয়াকৈর, দেওহাটা, মির্জাপুর ও ঘারিন্দা আন্ডারপাস এবং কাড্ডা-১, সাসেক সংযোগ সড়ক প্রকল্পের আওতায় জয়দেবপুর-চন্দ্রা-টাঙ্গাইল-এলেঙ্গা মহাসড়কে বিমাইল সেতুরও উদ্বোধন করেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী গত ১৬ মার্চ এ মহাসড়কের কাঁচপুর দ্বিতীয় সেতুর উদ্বোধন করেন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন- প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্পের মধ্যে অন্তর্ভূক্ত কুমিল্লার মেঘনা-গোমতি এবং মেঘনা ও কাঁচপুর- এ তিনটি সেতুর সমান্তরালে নবনির্মিত দ্বিতীয় সেতুগুলো রাজধানী ঢাকার সাথে বাণিজ্যিক রাজধানীখ্যাত বন্দর নগরী চট্টগ্রামের সড়ক পথের চলাচলে আজ থেকে এক নবদিগন্তের সূচনা হলো।

এ মহাসড়কের ওই তিনটি সেতুকেন্দ্রিক হাজারো যানবাহনের চাপে চিরচেনা যানজটের ভোগান্তি নিরসনে প্রধানমন্ত্রী নির্ধারিত সময়ের প্রায় সাত মাস আগেই এসব সেতু উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে স্বস্তির দুয়ার খুলে গেল। এতে দেশের অর্থনীতিতেও ইতিবাচক প্রভাব পড়বে এবং আমদানি-রপ্তানি পণ্য পরিবহন অনেক সহজতর ও সাশ্রয়ী হবে। যাত্রী ও পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ব্যয় হবে না।

এদিকে আসন্ন ঈদ-উল ফিতরে মহাসড়কে কোনো প্রকার ভোগান্তি ছাড়াই যানবাহন চলাচল করতে পারবে এমন আশায় এ রুটে চলাচলকারী বিভিন্ন যানবাহনের চালক, যাত্রী ও নানা শ্রেণিপেশার লোকজন বেশ খুশি, তাদের মাঝে বিরাজ করছে আনন্দ-উচ্ছ্বাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Shares